Wednesday, October 13, 2021
বাড়িজীবজগৎটানা ১১ দিন অবিরাম উড়ে ১২ হাজার কি.মি. দূরত্ব পাড়ি দিয়ে বিশ্ব...

টানা ১১ দিন অবিরাম উড়ে ১২ হাজার কি.মি. দূরত্ব পাড়ি দিয়ে বিশ্ব রেকর্ড ভাঙলো পাখি

পরিযায়ী পাখিদের মধ্যে একটানা সবচেয়ে বেশি দূরত্ব অতিক্রমের জন্যে বিশ্ব রেকর্ড আছে ডোরালেজ জৌরালি পাখির।

- Advertisement -

তীব্র শীত থেকে বাঁচতে মেরু অঞ্চল থেকে পরিযায়ী পাখিরা প্রতিবছর দলবেঁধে পাড়ি জমায় নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলের দিকে। হাজার হাজার মাইলের পথ অতিক্রম করে খুঁজে বেড়ায় বাসস্থানের উপযুক্ত অঞ্চল। রং-বেরঙের অপরূপ পরিযায়ী পাখিদের আগমন ঘটে সেই মৌসুমে।

পরিযায়ী পাখিদের মধ্যে একটানা সবচেয়ে বেশি দূরত্ব অতিক্রমের জন্যে বিশ্ব রেকর্ড আছে ডোরালেজ জৌরালি পাখির। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, সেই রেকর্ডও ভাঙলো একই প্রজাতির আরেকটি পাখি একটানা ১১ দিন উড়ে ১২ হাজার কি.মি. পথ পাড়ি দেয়ার মাধ্যমে।

ডোরালেজ জৌরালি

ডোরালেজ জৌরালি ( বৈজ্ঞানিক নামঃ Limosa lapponica ) পরিযায়ী পাখিদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দূরত্ব একটানা অতিক্রমের জন্যে বিখ্যাত। প্রতিবছর শীত মৌসুমে এরা আলাস্কা থেকে নিউজিল্যান্ডের উপকূলে পাড়ি জমায় । বিশাল দূরত্ব অতিক্রমে হালকা হয়ে উড়তে পাখিগুলো দেহের অভ্যন্তরীণ অঙ্গগুলির সংকোচনের মাধ্যমে দেহের ওজন কমিয়ে আনে। এই প্রজাতির পাখিরা আলাস্কা থেকে নিউজিল্যান্ড পর্যন্ত পাড়ি দেয় হাজার হাজার কিলোমিটার পথ। নিউজিল্যান্ডের উপকূলে চড়ে বেড়ায় মার্চ মাস পর্যন্ত; তারপর চীনের পীতসাগরে খাবারের জন্য মাসখানেক অবস্থান করে আবার ফিরে যায় আলাস্কায়।

এই পাখিরা আন্তঃমহাদেশীয় পরিযানে বিশাল দূরত্ব অতিক্রমে পারদর্শী। প্রতিবছর দলবেঁধে উড়ে আসে হাজারো মাইলের পথ। বিজ্ঞানীরা স্যাটেলাইটের মাধ্যমে এদের গতিপ্রকৃতি পর্যবেক্ষণ করেন। রেকর্ড গড়া এই পুরুষ ডোরালেজ জৌরালিটিকে সনাক্তকরণে বিজ্ঞানীরা একে ‘4BBRW’ নামে নামকরণ করেন। এরকম বিশেষ নামকরণের কারণ হচ্ছে এই প্রজাতির পাখির পায়ের ডোরাকাটা বিভিন্ন রঙ। ‘4BBRW’ নামের অর্থ এই পাখির পায়ে গাঢ় নীল, নীল, হলুদ এবং শেষে সাদা রঙের ডোরাকাটা দাগ। পরিযায়ী পাখিটি ২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বরে পশ্চিম আলাস্কা থেকে যাত্রা শুরু করে। আলাস্কা থেকে দক্ষিণের আলেউশিয়ান দ্বীপপুঞ্জের উপরে দিয়ে টানা ১১ দিন উড়ে  অকল্যান্ডের উপকূলে অবতারণ করে। স্যাটালাইটের তথ্য অনুযায়ী, পাখিটি ১২৮৫৪ কি.মি ( ৭৯৮৭ মাইল) দূরত্ব অতিক্রম করে। কিছু ব্যতিক্রম বিবেচনায় নিয়ে বিজ্ঞানীদের হিসেবে পাখিটি ১২,২০০ কি.মি. (৭৫৮১ মাইল) পথ পাড়ি দেয়। যাত্রাপথে পাখিটির বেগ প্রতি ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৮৫ কি.মি. পর্যন্ত রেকর্ড করা হয়েছে। এর পূর্বের রেকর্ডটি ছিলো একটি স্ত্রী ডোরালেজ জৌরালির যার অতিক্রান্ত দূরত্ব ছিলো ১১,৫০০ কি.মি (৭১৪৫ মাইল)।

ডোরালেজ জৌরালি। ছবির উৎস: livescience.com

পাখিটির দেহের লম্বা গঠন, সূচালো পাখা আর মসৃণ দেহকাঠামোর জন্যে একে জেট বিমানের অনুরূপ মনে হয়। পাখিটির এইরূপ শারীরিক অবকাঠামো পরিযানে বিশাল দূরত্ব পাড়ি দিতে সহায়ক।

পরিযায়ী পাখিটি নিউজিল্যান্ডের সংস্কৃতিতেও গুরুত্বপূর্ণ । নিউজিল্যান্ডের  মাউরি উপজাতিরা ‘কুয়াকা’ নামে পাখিটিকে চেনে। যার অর্থ  সৌভাগ্যের প্রতীক। তাদের মতে পাখিটির আগমন  সৌভাগ্যের বার্তা বয়ে আনে এবং এর প্রস্থানে হয় বসন্তের আগমন।

[livescience.com অবলম্বনে]
-হৃদয় বিশ্বাস

বিজ্ঞান পত্রিকার ইউটিউব চ্যানেল চালু হয়েছে।
এই লিংকে ক্লিক করে ইউটিউব চ্যানেল হতে ভিডিও দেখুন।
- Advertisement -

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সম্পর্কিত খবর

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

Stay Connected

যুক্ত থাকুন

302,182ভক্তমত
780গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Must Read

সম্পর্কিত পোস্ট

- Advertisement -
- Advertisement -

সবসময়ের জনপ্রিয়

সবচেয়ে আলোচিত

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -