Monday, September 20, 2021
বাড়িস্বাস্থ্যকৃত্রিম মিষ্টি (আর্টিফিশিয়াল সুইটেনার)-র চরম স্বাস্থ্যঝুঁকি

কৃত্রিম মিষ্টি (আর্টিফিশিয়াল সুইটেনার)-র চরম স্বাস্থ্যঝুঁকি

কৃত্রিম মিষ্টির অনেক ভয়াবহ দিক এখনো অজ্ঞাত

- Advertisement -

একটি নতুন গবেষণা অনুসারে, বহুলভাবে ব্যবহৃত কৃত্রিমভাবে প্রস্তুত মিষ্টি আমাদের অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়াগুলোকে দিয়ে অন্ত্রের দেয়াল আক্রমণ করিয়ে গুরুতর স্বাস্থ্যগত সমস্যা তৈরি করতে পারে।

ঐ গবেষণামতে, আমরা এখনো বিভিন্ন ডায়েট পণ্যে যুক্ত করা অনেক কৃত্রিম মিষ্টি সম্পর্কে অনেক কিছুই জানি না। কৃত্রিম মিষ্টির সম্ভাব্য প্রভাব সম্পর্কে জানার জন্যে আরও অনেক গবেষণা প্রয়োজন।

ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ মলিকুলার সায়েন্সেস এ একটি গবেষণা পত্রের প্রধান লেখক, যুক্তরাজ্যের অ্যাঙ্গলিয়া রাসকিন বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেডিক্যাল সায়েন্সের প্রবীণ প্রভাষক হাভোভি চিগার বলেন, “কৃত্রিম মিষ্টি গ্রহণের ব্যপারে অনেক উদ্বেগের বিষয় রয়েছে। কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে, কৃত্রিম মিষ্টি আমাদের অন্ত্রে মাইক্রোবায়োটা নামে পরিচিত অন্ত্র সমর্থনকারী ব্যাকটেরিয়ার স্তরকে প্রভাবিত করতে পারে”।

এই প্রথমবারের মত দেখা গেছে যে, অতি জনপ্রিয় স্যাকারিন, সুক্রোলস এবং অ্যাস্পার্টামের মত আরো অনেক কৃত্রিম মিষ্টি আমাদের অন্ত্রের দুই ধরণের ব্যাকটেরিয়া যথাঃ ই-কোলি এবং ই-ফ্যাকালিসকে রোগ সৃষ্টিতে সাহায্য করছে। এই রোগ সৃষ্টিকারী ব্যাকটিরিয়াগুলো পরবর্তীতে আমাদের অন্ত্রের প্রাচীর ঘেঁষে অবস্থান করা কাকো-২ নামক কোষের সঙ্গে নিজেদেরকে সংযুক্ত করতে, নিয়ন্ত্রণ করতে এবং সর্বশেষে মেরে ফেলতে সক্ষম হয়।

এই পুরো ব্যপারটি ঘটার জন্যে শুধু দুটি ডায়েট কোমল পানীয় ক্যানের সমঘনত্বের একটি দ্রবণের প্রয়োজন হয়েছিল। প্রকৃতপক্ষে, ঐ তিনটি কৃত্রিম মিষ্টিই উভয় ধরণের ব্যাকটেরিয়ার অন্ত্রের প্রাচীরের কোষগুলিতে সংযুক্ত থাকার সক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে।

তিনটি মিষ্টিই বায়োফিল্মের পরিমান বাড়িয়ে দিয়েছিল। বায়োফিল্মের এই বৃদ্ধি এককোষী ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ প্রতিরোধের চিকিৎসার জন্য তাদের কম সংবেদনশীল করে তুলেছিল। অন্ত্রের দেয়াল আক্রমণকারী, রোগ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া সত্যিই খারাপ অবস্থার সৃষ্টি করতে পারে। পূর্ববর্তী গবেষণায় দেখা গেছে যে, অন্ত্রের প্রাচীর অতিক্রমকারী ই-ফ্যাকালিস ব্যাকটেরিয়া সেপটিসেমিয়া বা ব্লাড পয়জনিং সহ বেশ কয়েকটি সংক্রমণের কারণ হতে পারে।

চিগার আরো বলেন যে, “এই পরিবর্তনগুলি আমাদের নিজের অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়াকে আক্রমণ করে এবং আমাদের অন্ত্রের ক্ষতি করতে পারে। এর ফলে বিভিন্ন সংক্রমণ, পঁচন এবং একাধিক অঙ্গের অক্ষম হয়ে যাওয়ার মত ঘটনা ঘটতে পারে”। অন্যভাবে বলা যায়, আসল চিনিযুক্ত কোমল পানীয় অধিকতর স্বাস্থ্যকর বলে বিবেচিত হতে পারে। [futurism.com অবলম্বনে]

-পুলক বড়ুয়া

বিজ্ঞান পত্রিকার ইউটিউব চ্যানেল চালু হয়েছে।
এই লিংকে ক্লিক করে ইউটিউব চ্যানেল হতে ভিডিও দেখুন।
- Advertisement -

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সম্পর্কিত খবর

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

Stay Connected

যুক্ত থাকুন

302,488ভক্তমত
779গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Must Read

সম্পর্কিত পোস্ট

- Advertisement -
- Advertisement -

সবসময়ের জনপ্রিয়

সবচেয়ে আলোচিত

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -