Thursday, October 14, 2021
বাড়িঅণুপোস্টঘোড়ার রক্ত হতে সাপের বিষের প্রতিষেধক

ঘোড়ার রক্ত হতে সাপের বিষের প্রতিষেধক

- Advertisement -

সাপের কামড়ের ফলে প্রাণীর শরীরে বিষ প্রবেশ করে। এই বিষ প্রতিরোধের জন্য প্রানীর শরীরে এন্টিবডি তৈরি হয় যা সেই বিষের প্রভাব প্রশমিত করে। তাহলে সাপের কামড়ে মানুষের মৃত্যু ঘটে কেন? এর কারণ সাপের শরীর থেকে যে পরিমান বিষ মানুষের শরীরে প্রবেশ করে তা অনেক সময় মানুষের শরীরে এন্টিবডি তৈরির আগেই মৃত্যু ঘটানোর জন্য যথেষ্ট। কিন্তু মানুষের রক্তনালীতে যদি খুব সামান্য পরিমান বিষ ঢোকানো হয়, (যেমন: একটি চুলের প্রান্তে যে পরিমাণ বিষ ধরে) তাহলে মানুষ সেই বিষের প্রভাব অনুভবই করবে না, কিন্তু রক্তে এই বিষের বিরুদ্ধে এন্টিবডি তৈরি হবে।পরবর্তীতে যদি অপেক্ষাকৃত বেশী পরিমান বিষও প্রবেশ করানো হয় তাহলে সেই উৎপন্ন এন্টিবডি সাপের বিষ প্রতিরোধ করবে এবং আরো বেশী এন্টিবডি তৈরি হবে।এভাবে দীর্ঘদিন ধরে ক্রমান্বয়ে বিষের ডোজ বাড়ানো হতে থাকলে শরীরে যথেষ্ট পরিমান এন্টিবডি তৈরি হয়ে যাবে এবং তা একসময় সাপের কামড়ে মৃত্যু প্রতিরোধের জন্য যথেষ্ট হবে।
এই পদ্ধতিতে সাপের বা অন্যান্য বিষধর প্রানীর কামড়ের প্রতিষেধক (এন্টিবডি) তৈরি করা হয়। তবে সংগত কারণেই প্রতিষেধক তৈরির জন্য মানুষের দেহ ব্যবহার করা হয় না বরং ব্যবহার করা হয় ঘোড়া কিংবা বিশেষ ক্ষেত্রে ভেড়া। প্রথমে সাপের শরীর থেকে বিষ সংগ্রহ করতে হয়। এরপর উপরে উল্লিখিত পদ্ধতিতে ঘোড়ার শরীরে প্রথমে সহনীয় মাত্রায় সাপের বিষ প্রয়োগ করে করে চার থেকে ছয়মাসের মধ্যে একে অতিপ্রতিরোধক্ষম (Hyperimmune) হিসেবে তৈরি করা হয়। এর ফলে পরবর্তীতে এর শরীরে যথেষ্ট পরিমানে বিষ প্রয়োগেও এর শারীরিক সমস্যা হয় না কেননা ততোদিনে এর রক্তে যথেষ্ট পরিমান এন্টিবডি জমা হয়ে যায়। নির্দিষ্ট সময় অন্তর ঘোড়ার সেই অতিপ্রতিরোধক্ষম রক্ত সংগ্রহ করে বিশেষ পদ্ধতিতে এন্টিবডি পৃথক করে তা বাজারজাত করা হয়। বিভিন্ন প্রানীর দেহে উৎপন্ন বিষ বিভিন্ন ধরনের হওয়ায় ঘোড়ার রক্ত থেকে বিষের প্রতিরোধক তৈরির জন্য নির্দিষ্ট ধরনের প্রানীর বিষই ব্যবহার করতে হয় এবং ওই নির্দিষ্ট প্রানীটির বিষ থেকে তৈরি এন্টিবডিই ওই প্রানীর কামড়ের বিরুদ্ধে প্রতিষেধক হিসেবে ব্যবহার করতে হয়।

 

 

[অণুপোস্ট বিভাগে ছোট ও মজাদার বৈজ্ঞানিক সত্য পোস্ট করা হবে]

সব অণুপোস্ট পাবেন এখানে।

বিজ্ঞান পত্রিকার ইউটিউব চ্যানেল চালু হয়েছে।
এই লিংকে ক্লিক করে ইউটিউব চ্যানেল হতে ভিডিও দেখুন।
- Advertisement -

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সম্পর্কিত খবর

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

Stay Connected

যুক্ত থাকুন

302,175ভক্তমত
780গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Must Read

সম্পর্কিত পোস্ট

- Advertisement -
- Advertisement -

সবসময়ের জনপ্রিয়

সবচেয়ে আলোচিত

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -