গতকাল এক টুইটার বার্তায় ইলোন মাস্ক বলেন তাঁদের পূর্বঘোষিত ফ্যালকন হ্যাভি রকেটের উদ্বোধন আগামী কয়েকমাসের মধ্যেই অনুষ্ঠিত হবে। এই রকেটটি বিশ্বের প্রথম মহাশূন্য পর্যটকদের বহন করবে এবং পূর্বের যেকোন সময়ের তুলনায় মানুষকে পৃথিবী হতে সবচেয়ে দূরে বহন করবে।

ইলোন মাস্কের প্রতিষ্ঠিত মহাশূন্য গবেষনা প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স আগমী কয়েকমাসের মধ্যে বেশ কিছু মাইল ফলক অতিক্রম করতে যাচ্ছে। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করা যায় বেশ কিছুদিন আগে একজন টুইটার ব্যবহারকারী মন্তব্যের ঘরে ইলোন মাস্ককে কবে নাগাদ ফ্যালকন হ্যাভি রকেটটি আসছে সেই ব্যাপারে জানাতে অনুরোধ করেছিলেন। স্পেস এক্সের অদ্যাবধি সর্বাপেক্ষা বড় এই রকেটটি ভবিষ্যতে মানুষকে পুণরায় চাঁদে নিয়ে যাবে।

নতুন টুইটবার্তায় মাস্ক বলেন আমরা আগামী চার মাসের মধ্যে, এই গ্রীষ্মের শেষেই নতুন রকেটের উদ্বোধন দেখতে যাচ্ছি।

ফ্যালকন হ্যাভি রকেট হবে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী রকেট যা ৫৪ মেট্রিকটন মালামাল ও যাত্রী উৎক্ষেপন করে নিয়ে যেতে পারবে। এই রকেটটি ২০১৮ সাল নাগাদ চাঁদে পর্যটক বহন করে নিয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। সমগ্র ভ্রমনের সময় ৬ থেকে ৭ দিনের মধ্যে হবে বলেও আশা প্রকাশ করা হয়।

২০২৫ সাল নাগাদ স্পেস এক্স মঙ্গলের বুকে মানুষ পাঠাতে চায়। ফ্যালকন হ্যাভি এই অগ্রযাত্রায় উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রাখবে বলে ধারনা করা যায়। [ ScienceAlert অবলম্বনে]

– বিজ্ঞান পত্রিকা ডেস্ক