হাসপাতালে পরিচ্ছন্নতাকে অধিক গুরুত্ব দিতে থাকা সত্বেও সম্প্রতি আমেরিকার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয়ে হাসপালগুলিতে একটি মারাত্মক অতি সহনশীল জীবাণু বা ‘সুপারবাগ’ ধীরগতিতে আক্রমণ করে চলেছে। এই সুপারবাগকে ক্যান্ডিডা অরিস নামে ডাকা হয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের Centers for Disease Control and Prevention (CDC) ভাষ্যমতে এধরনের প্রায় ৬০ টি উজ্জীবিত ছত্রাককে ইতিমধ্যে সনাক্ত করা হয়েছে যাদের বেশিরভাগই নিউইয়র্ক এবং নিউজার্সিতে পাওয়া গিয়েছে। সবধরনের এন্টিবায়োটিক প্রয়োগ করেও এই জীবাণুগুলোকে থামানো যাচ্ছে না।

২০০৯ সালে জাপানে প্রথম এ ধরনের জীবাণু পাওয়া গিয়েছিলো যা মানুষ থেকে মানুষে এবং চিকিৎসা সরঞ্জামের মাধ্যমে স্থানান্তরিত হতো। আর এর ফলে রক্তে সংক্রমণ, জখমে সংক্রমণ এবং কানে সংক্রণ হয়ে থাকে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চার জনের মৃত্যু হয়েছে।

আরও বিপজ্জনক বিষয় হচ্ছে, এই সুপারবাগ ডাক্তারদের ব্যবহৃত তিনটি ছত্রাক বিরোধী ঔষধ প্রতিরোধী। ইনসেন্টিভ কেয়ার ইউনিটে থাকা রোগীরা এবং মূত্রনিষ্কাশন শিরার রোগীরাই সর্বোচ্চ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

প্রচলিত ল্যাব পরীক্ষায় সামান্য পরিচিত এই ছত্রাক সম্পর্কে ভুল ধারণা দিতে পারে তাই,  CDC চেষ্টা করে যাচ্ছে যত দ্রুত সম্ভব অধিক ছড়িয়ে পড়ার আগেই এর সম্পর্কে জানার জন্য। [AoI-অবলম্বনে]

·         শফিকুল ইসলাম