Friday, October 22, 2021
বাড়িপ্রযুক্তিদক্ষিণ এশিয়া উপগ্রহ উৎক্ষেপন করেছে ভারত

দক্ষিণ এশিয়া উপগ্রহ উৎক্ষেপন করেছে ভারত

- Advertisement -

গত শুক্রবার ভারত তার পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা সরবরাহ করার লক্ষ্যে একটি উপগ্রহ উৎক্ষেপন করেছে। আর ভারতীয় মহাকাশ সংস্থা এর সকল কার্যক্রম সফলভাবে পরিচালনা করেছেন। ৫ মে শুক্রবার অন্ধ প্রদেশ থেকে GSAT-9  উপগ্রহটি উৎক্ষেপন করা হয়েছে।

কয়েক বছর আগে সার্কের সদস্যভূক্ত সকল দেশকে সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সম্পূর্ণ ভারতের অর্থায়নে দক্ষিণ এশিয়া উপগ্রহ উৎক্ষেপনের ঘোষণা দেয়া হয়েছিলো।

দিল্লি ভিত্তিক সংস্থা সোসাইটি ফর পলিসি স্টাডিস এর পরিচালক উদয় বসাকের মতে উপগ্রহটি আঞ্চলিক সহযোগীতার নতুন অধ্যায়ের সূচনা করেছে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রি নরেন্দ্র মোদি একে ‘সার্ক অঞ্চলের উপহার’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

উপগ্রহ উৎক্ষেপন কালে মোদি বলেন, “যখন সমমনা দেশগুলোর সঙ্গে আঞ্চলিক সহযোগীতার বিষয় সামনে চলে আসে তখন আকাশের কোন সীমানা বাধা হয়ে দাঁড়ায় না।”

যদিও ৩৬ মিলিয়ন ডলারের এই প্রকল্প থেকে পাকিস্তান নিজেদেরকে সরিয়ে নিয়েছে।

ভারতের মহাকাশ পরিকল্পনা ক্রমেই বর্ধিত হচ্ছে

২,২৩০ কিলোগ্রাম ওজনের দক্ষিণ এশিয়া উপগ্রহটি ১২ টি উন্নত মানের যোগায়োগ যন্ত্র বহন করছে যা, গত ফেব্রুয়ারীতে উৎক্ষেপিত ইতিহাস সৃষ্টিকারী ১০৪ টি উপগ্রহ উৎক্ষেপনের পর ভারতের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য প্রকল্প।

২০১৩ সালে ভারতের মার্স অরবিটার উৎক্ষেপিত হওয়ার পর দেশটির মহাকাশ সংস্থা সবচেয়ে নির্ভরযোজ্ঞ এবং সাশ্রয়ী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিশ্ববাজারে আত্ম-প্রকাশ করেছে। নতুন এই উপগ্রহটি অন্যান্য দেশের সাথে টেলিযোগাযোগ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং আবহাওয়ার পূর্বাভাসের তথ্য আদান-প্রদান করবে।

বিশ্বের এক-চতুর্থাংশ জনসংখ্যা অধ্যুসিত দক্ষিণ এশিয়ার এই অঞ্চলে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়, তাপপ্রবাহ, ভূমিকম্প, সুনামী ভূমিধস এবং বন্যা প্রবণতার আগাম সব তথ্য উপাত্ত আদান-প্রদানের মাধ্যমে এসব অঞ্চলের মানুষ দুর্যোগ যোগাযোগের ক্ষেত্রে বড় ধরনের সুবিধা ভোগ করতে পারবে।

রাজা গোপালান বলেন, “বাংলাদেশের জলবায়ুতে মারাত্মক ভিন্নতা রয়েছে, যেখানে মালদ্বীপ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব প্রত্যক্ষ করে যাচ্ছে। উভয় দেশই দুর্যোগ সতর্কতার মধ্যে রয়েছে।”

উদয় ভাসকর জানান, “এটি দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক জনগোষ্ঠীর নিরাপত্তা সূচক বৃদ্ধিতে অনেক দূর অগ্রসর হতে পারবে।” [সিএনএন- অবলম্বনে]

-শফিকুল ইসলাম

বিজ্ঞান পত্রিকার ইউটিউব চ্যানেল চালু হয়েছে।
এই লিংকে ক্লিক করে ইউটিউব চ্যানেল হতে ভিডিও দেখুন।
- Advertisement -

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সম্পর্কিত খবর

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

Stay Connected

যুক্ত থাকুন

302,076ভক্তমত
783গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Must Read

সম্পর্কিত পোস্ট

- Advertisement -
- Advertisement -

সবসময়ের জনপ্রিয়

সবচেয়ে আলোচিত

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -