আজ ১৪ নভেম্বর রাতে চাঁদ প্রায় ৭০ বছরের তুলনায় পৃথিবীর সবচেয়ে নিকটে অবস্থান করবে। এটি তাই সুপারমুনগুলোর মধ্যেও সুপার। এই রাতে গড়পরতা পূর্ণিমাগুলোর তুলনায় চাঁদের আকার ১৪ শতাংশ বড় এবং উজ্জ্বলতা ৩০ শতাংশ বেশী হবে। শেষবার ১৯৪৮ সালের জানুয়ারী মাসে চাঁদ পৃথিবীর এতটা কাছে এসেছিলো। এধরনের সুপারমুন পুনরায় দেখা যাবে ২০৩৪ সালের ২৫ নভেম্বর। ফলে অনেকের পক্ষেই পরবর্তী ঘটনাটি দেখার সৌভাগ্য না-ও হতে পারে। বাংলাদেশের সময়ে সন্ধ্যা ৭:৫২ তে চাঁদ সবচেয়ে নিকটবর্তী হবে।

চাঁদ পৃথিবীকে প্রায় সাড়ে ২৯ দিনে একবার পরিভ্রমণ করে এবং এই সময়ের মধ্যে চাঁদ এবং পৃথিবীর দূরত্ব সর্বদা সমান থাকে না বরং একটি নির্দিষ্ট বিন্দুতে চাঁদের সাথে পৃথিবীর দূরত্ব সবচেয়ে কম থাকে। এই সময় তাই চাঁদকে অপেক্ষৃত বড় দেখায় (চিত্র দ্রষ্টব্য)। আর সেই রাত যদি হয় পূর্ণিমার রাত তাহলে তো সোনায় সোহাগা! এই অবস্থায় দৃশ্যমান চাঁদকেই বলা হয় সুপারমুন।

14925304_1074106026020039_1866236108497224012_n

পুর্নিমার সময় চাঁদকে বড় দেখানো খুব বিরল নয়। তবে ১৪ নভেম্বর পুর্ণিমার যথাযথ সময়ের দুই ঘন্টার মধ্যে পৃথিবী ও চাঁদের দূরত্বের সর্বনিম্ন অবস্থা তৈরি হবে। তাই সাধারণ সুপারমুনের চেয়েও এই সুপারমুনটিতে চাঁদ আরো তীব্র হবে।

বিজ্ঞান পত্রিকা প্রকাশিত ভিডিওগুলো দেখতে পাবেন ইউটিউবে। লিংক:
১. টেলিভিশনঃ তখন ও এখন
২. স্পেস এক্সের মঙ্গলে মানব বসতি স্থাপনের পরিকল্পনা