স্পেস এক্স এবং টেসলার ফেসবুক পেইজ মুছে দিলেন ইলোন মাস্ক

0

বেসরকারী মহাকাশ গবেষণা সংস্থা স্পেস এক্স এবং বৈদ্যুতিক গাড়ির কোম্পানী টেসলার প্রতিষ্ঠাতা ইলোন মাস্ক #deletefacebook আন্দোলনে একাত্মতা ঘোষনা করেছেন। শুক্রবারে একাতারে কয়েকটি টুইট বার্তায় তিনি জানিয়েছেন তিনি স্পেস এক্স এবং টেসলার ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেইজ দুটি মুছে দিচ্ছেন। কিছু অনুসারীর মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে মাস্ক ফেসবুক পেইজ দুটি মুছে দেওয়ার চিন্তাভাবনা শুরু করেছিলেন।

বার্তা আদান প্রদানের অ্যাপ হোয়াটস’অ্যাপের সহপ্রতিষ্ঠাতা ব্রায়ান একটনের মন্তব্যের জবাবে মাস্ক লেখেন, “ফেসবুক কী বস্তু?” কয়েককোটি ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য ফেসবুক থেকে হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার পর অ্যাকটন #deletefacebook হ্যাশট্যাগটির প্রচলন ঘটান এবং ফেসবুক বর্জন করার আন্দোলন শুরু করেন। অন্য আরেকজন অনুসারী যখন মাস্ককের টুইটে মন্তব্য করে স্পেস এক্সের ফেসবুক পেইজ মুছে ফেলতে অনুরোধ করেন তখন তিনি জানান তিনি মুছে ফেলবেন। তিনি বলেন, তিনি জানতেনই না তাঁর প্রতিষ্ঠানের ফেসবুক পেইজ আছে। তিনি বলেন এটি শিঘ্রই মুছে যাবে।

অপর একজন অনুসারী তাঁকে টেসলার ফেসবুক পেইজটির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে সেটিও মুছে ফেলা উচিৎ বলে মন্তব্য করেন। তিনি তাতেও সায় দেন।

টেসলা এবং স্পেস এক্সের পেইজে সবমিলিয়ে ৫০ লাখ অনুসারী ছিলো। আপনি যদি স্পেস এক্সের ভক্ত হোন এবং এই সংস্থার মহাকাশ অভিযাত্রার চমৎকার ছবি এবং ভিডিওগুলো পেতে চান তাহলে জানিয়ে রাখি আপনি এখনো সমাজিক মাধ্যমে এগুলো পেতে পারেন। স্পেস এক্সের টুইটার, ইউটিউব, ফ্লিকার এবং ইনস্টাগ্রামের একাউন্ট বলবৎ থাকবে। উল্লেখ্য বর্তমানে ইন্সটাগ্রামের মালিকানাও ফেসবুকের। [সুত্র: Livescience]

Share.

মন্তব্য করুন