২০২০ সাল নাগাদ উড়ন্ত গাড়ি চালু করতে উবার ও নাসার যৌথ প্রয়াস

0
202

গত বছর এক শ্বেতপত্রে উবার উড়ন্ত গাড়ির সেবা চালুর করার পরিকল্পনা উন্মোচন করেছিলো। এই পরিকল্পনায় রয়েছে দূরত্ব অনুযায়ী পরিশোধের ব্যবস্থা।  এই নতুন প্রকল্পের নাম “উবার এলিভেট (Uber Elevate)”।

পর্তুগালে অনুষ্ঠিত ওয়েব শীর্ষ সম্মেলনে উবারের প্রধান পণ্য ব্যবস্থাপক জেফ হোল্ডেন শ্রোতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, পরীক্ষামূলক শহর হিসেবে যেসব শহরকে বেছে নেওয়া হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে লস এঞ্জেলেস। আগামী তিন বছরের মধ্যে হেলিকপ্টার সদৃশ এই গাড়িগুলোকে এক স্টেশন হতে আরেক স্টেশনে উড়ে যেতে দেখা যাবে।

হোল্ডেনের ভাষ্য অনুযায়ী, “লস এঞ্জেলেস বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত ও ট্রাফিক জ্যামের শহরগুলোর একটি। এই শহরে দৃশ্যত কোনো গণপরিবহন ব্যবস্থা নেই। এই ক্ষেত্রে আমাদের উদ্যোগ একটি সাশ্রয়ী গণপরিবহন ব্যবস্থার দিগন্ত খুলে দিতে পারে এবং সেটা ট্রাফিক ব্যবস্থা আরো অকার্যকর না করেই।”

তাহলে এই পরিকল্পনা কীভাবে কাজ করবে? উবার অ্যাপের মাধ্যমে আপনি বর্তমানে যেভাবে গাড়ি অর্ডার করেন ঠিক একই ভাবেই উড়ন্ত গাড়িগুলোকেও ডেকে আনা যাবে। অতপর, আপনাকে নিকটস্থ একটি ভবনের উপরে স্থাপিত ‘আকাশবন্দরে’ পৌঁছাতে হবে। সেখানে আপনার ও আপনার মালপত্রের ওজন সীমিত আছে কিনা পরীক্ষা করে আপনাকে গাড়িতে তুলে নেওয়া হবে।

শুনে ভবিষ্যতদর্শী পরিকল্পনা মনে হলেও বর্তমানে বিশ্বের ২০ টি কোম্পানী উড়ন্ত গাড়ি নিয়ে কাজ করছে। কাজেই যতটা কল্পকাহিনী মনে হচ্ছে অগ্রগতি তারচেয়ে অনেক বেশী। তাছাড়া, শুনে এই ভ্রমন খুব ব্যয়বহুল মনে হলেও হোল্ডেন তা উড়িয়ে দেন এবং বলেন উবারের মটোই হলো সস্তায় ভালো সেবা দেওয়া।

হেল্ডেন একই সাথে ঘোষনা দেন উবার নাসার সাথে যৌথভাবে একটি আকাশ পথের ট্রাফিক নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থা তৈরি করছে। এর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানদুটি একে অপরের সাথে জ্ঞান বিনিময় করবে।

-বিজ্ঞান পত্রিকা ডেস্ক

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.