জিকা ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে ২ কোটি মশা ছাড়ার পরিকল্পনা করেছে গুগল!

0

গুগলের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ভেরিলি ক্যালিফোর্নিয়ার ফেসনো শহরে ২ কোটি পুরুষ মশা উন্মুক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছে। তবে এগুলো সাধারণ মশা বরং এক ধরনের ব্যক্টেরিয়ার মাধ্যমে পরিবর্তিত যা এই মশাগুলোকে নিষ্ফলা করে ফেলে। জিকা ভাইরাস এবং ডেঙ্গ প্রতিরোধে এটি এখন পর্যন্ত নেওয়া সর্ববৃহৎ পরিকল্পনা।

প্রাণ গবেষণার জন্য নিয়োজিত ভেরিলি একটি রোবট তৈরি করেছে যা প্রতি সাপ্তাহে ১০ লাখ মশা উৎপাদন করে একটি স্বয়ংক্রিয় গবেষণাগারে। এই মশাগুলোকে একটি প্রাকৃতিক ব্যক্টেরিয়া উলবাচিনা’র মাধ্যমে বৈশিষ্ট্যে পরিবর্তন ঘটানো হয় এবং এর বিভিন্ন যন্ত্রপাতি এবং এলগরিদম ব্যবহার করে উৎপাদন বৃদ্ধি করা হয়। ২ কোটি মশার মধ্যে প্রথম ধাপের মশার একটি দলকে ইতিমধ্যেই পরিবেশে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ভেরিলি একটি স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার মাধ্যমে পুরুষ মশাগুলোকে আলাদা করে ফেলে। পুরুষ মশা মানুষকে কামড়ায় না। এই পরিবর্তিত মশাগুলো যখন স্ত্রী মশাগুলোর সাথে মিলিত হবে তখন মশার ডিমগুলো নিষিক্ত হবে না বা ডিমগুলো ফুটে বাচ্চা তৈরি হবে না। এই বিষয়টি একটি পরীক্ষামূলক উদ্যোগ। ভবিষ্যতে মশাবাহিত বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে এটি কার্যকর ভুমিকা রাখতে পারে।

বিষয়টি বিভিন্ন ধরনের পরিবেশে কাজ করে কিনা তা দেখার জন্য এই বছরের শেষ নাগাদ অস্ট্রেলিয়াতেও এধরনের একটি প্রকল্প চালানো হবে।

মশা বাস্তুতন্ত্রের একটি উপদান। এভাবে বাস্তুতন্ত্রের উপর প্রভাব তৈরি করলে তা পরিবেশের উপর কোনো বিরুপ প্রভাব ফেলে কিনা প্রকল্পটি গ্রহণ করার আগে তা বিশ্লেষণ করে দেখা হয়েছে। পরিবেশের উপর উল্লেখযোগ্য প্রভাব পড়বে না নিশ্চিত হওয়ার পরই এই উদ্যোগটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

-বিজ্ঞান পত্রিকা ডেস্ক

Share.

মন্তব্য করুন