Top header

যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে ওষুধ-প্রতিরোধী ব্যাকটেরিয়া দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে

0

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে একপ্রকার এন্টিবায়োটি-প্রতিরোধী ব্যাকটেরিয়ার দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। গবেষকগণ একে ‘দুঃস্বপ্নের ব্যাকটেরিয়া’ আখ্যা দিয়েছেন।

প্রতিবছর arbapenem-resistant Enterobacteriaceae (CRE) নামক ব্যাকটেরিয়াটি শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্রেই প্রায় ৯৩০০ জন মানুষকে আক্রান্ত করছে এবং প্রায় ৬০০ মানুষ এতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছেন। কিন্তু এখন গবেষকগণ ভাবছেন এরা হয়তো ব্যক্তি থেকে ব্যক্তিতে কোন উপসর্গ না প্রকাশ করেই ছড়িয়ে পড়ছে যার ফলে ডাক্তারগণ এদের সনাক্ত করতে পারছেন না। CRE একপ্রকার ওষুধ প্রতিরোধী ব্যাকটেরিয়া যা Carbapenems ওষুধ প্রতিরোধে সক্ষম।

হার্ভাড টি এইচ চ্যান স্কুল অব পাবলিক হেলথ থেকে উইলিয়াম হ্যানাং বলেন, “যেখানে CRE সংক্রমণে অসুস্থ রোগীদের সাধারণ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে সেখানে আমাদের হাতে থাকা নতুন তথ্য বলছে CRE অনেকটা দুরূহ পর্যায়ের রোগের মতো ছড়িয়ে পড়ছে। আমাদের আরও কঠোরভাবে নজরদারির প্রয়োজন রয়েছে যদি আমরা এই অলক্ষিত সংক্রমককে এখনই রুখে দিতে চাই।”

ব্যাকটেরিয়া পরিবারের মধ্যে Enterobacteriaceae হচ্ছে সবচেয়ে বড় যার মধ্যে রয়েছে সালমোনেলা, ই কোলাই এবং শিগেলা আর এগুলো খাদ্য বিষক্রিয়া এবং পেটের অসুখের প্রধান কারণ। এরা ওষুধ প্রতিরোধী না হওয়ায় এদের সহজেই অ্যান্টিবায়োটিক দ্বারা চিকিৎসা করা যায়। কিন্তু অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী ব্যাকটেরিয়া এই পরিবারে দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

হাসপাতালের পরিবেশে দীর্ঘ সময় ধরে বৃদ্ধি পাওয়া এবং জিন ছড়িয়ে দেয়া এসব ব্যাকটেরিয়া অবশেষে প্রাণঘাতি সিএসই জীবাণুতে রূপান্তরিত হচ্ছে যা কোন ওষুধের চিকিৎসায় প্রতিরোধ করা যায়না।

সরকারী এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে গত সপ্তাহে এক মার্কিন নারী অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী নিউমোনিয়ার এক বিশেষ ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে মারা গেছে যা যুক্তরাষ্ট্রের প্রচলিত সব সব ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী।

উইলিয়াম হ্যানাং এর দল ক্যালিফোর্নিয়া এবং বোস্টন হাসপাতালের প্রায় ২৫০ জনেরও বেশী রোগীর নমুনা বিশ্লেষণ করে CRE-র এই দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ খুঁজে দেখার চেষ্টা করেছেন। বিশ্লেষণের কাজ সমাপ্ত হওয়ার পর তাঁরা দেখতে পান পূর্বের চেয়েও দ্রুত গতিতে CRE বৈচিত্র্যময় হয়ে যাচ্ছে এবং ওষুধ-প্রতিরোধী জিনগুলো আরও দ্রুত ও সহজে ছড়িয়ে পড়ছে।

মাঝে মাঝে এমন প্রজাতির দেখা মিলেছে যারা supress carbapenems নামে পরিচিত জিনও বহন করছে না কিন্তু তারা টিকে থাকতে সক্ষম হচ্ছে। আর এতেই বুঝা যাচ্ছে এরা অ্যান্টিবায়োটিক এড়িয়ে চলার পথ খুঁজে পেয়েছে যা আমরা এখন পর্যন্তও জানতে পারিনি।

স্টার নিউজ কে হ্যানাং বলেছে, “বিভিন্ন উপায়ে এদের প্রতিরোধ করা সম্ভব হতে পারে। তবে সবচেয়ে উত্তম উপায় হচ্ছে সিআরই সংক্রমণের সূচনা হওয়ার জায়গা থেকেই এদের প্রতিরোধ করা।” [সাইন্সএলার্ট-অবলম্বনে]

-শফিকুল ইসলাম

Share.

মন্তব্য করুন