একতাই প্রজ্ঞা!

0

একতাই বল এটি সবার জানা আছে, কিন্তু একতাই যে প্রজ্ঞা তা কি শুনেছেন কখনো?

১৯০৬ সালে ব্রিটিশ পরিসংখ্যানবিদ ফ্রান্সিস গ্যালটন একটি মেলায় গিয়ে দেখলেন সেখানে একটি মোটাসোটা ষাঁড়ের ওজন অনুমান নিয়ে প্রতিযোগীতা হচ্ছে। যে সঠিকভাবে ষাঁড়ের ওজন বলতে পারবে তাকে সেই ষাঁড়ের মাংস পুরস্কার হিসেবে দিয়ে দেওয়া হবে এমনই ছিলো নিয়ম।

প্রায় ৮০০ লোক এই প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করেন যাদের অনেকেই ষাঁড় পালনে অভিজ্ঞ আবার অনেকই একেবারে আনাড়ি। কিন্তু এদের কেউই ষাঁড়ের ওজন সঠিক ভাবে অনুমান করতে পারেন নি তাই পুরস্কারও পান নি। পরিসংখ্যানবিদ হওয়াতেই রোখের বশে গ্যালটন এই ৮০০ লোকের অনুমানকৃত ওজনের গড় নির্ণয় করেন এবং তার ফলাফল দেখে তিনি অবাক হয়ে গেলেন। তিনি দেখতে পেলেন ৮০০ লোকের নির্নীত গড় ওজন ষাঁড়টির প্রকৃত ওজনের সবচেয়ে কাছাকাছি।

সম্প্রতি এই বিষয়টির সত্যতা যাচাই করে দেখার জন্য আরো জটিল একটি পরীক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিলো বিবিসির পক্ষ থেকে। প্রখ্যাত গণিতবিদ মার্কাস ডি সতয় একটি বয়ামে কয়েক হাজার জেলি বিন রেখে ১৬০ জন ব্যক্তিকে বয়ামের জেলী বিনের সংখ্যা অনুমান করতে দিয়েছিলেন। এই ১৬০ জনের মধ্যে যিনি সবচেয়ে কম পরিমান অনুমান করেছেন তিনি বলেছেন ৪০০ টি আর সর্বোচ্চ অনুমান ছিলো ৫০,০০০। ১৬০ জনের অনুমানের মোট সংখ্যার গড় হচ্ছে ৪৫১৪.৯। আর বয়ামে জেলী বিনের প্রকৃত সংখ্যা কত ছিলো? ৪৫১০!!!!! অদ্ভুত, নিঃসন্দেহে। বিবিসির ভিডিওটি দেখতে পাবেন নীচে।

-বিজ্ঞান পত্রিকা ডেস্ক

Share.

মন্তব্য করুন