Top header

দ্বিতীয়বারের মতো মহাকর্ষীয় তরঙ্গ সনাক্ত

0

পুনরায় সনাক্ত করা হয়েছে মহাকর্ষীয় ত্বরঙ্গ। ফেব্রুয়ারীতে প্রকান্ড সাড়া জাগানো ঘোষনার পর একটি আন্তর্জাতিক গবেষক দল পুনরায় দুটি সংঘর্ষময় ব্ল্যাক হোল থেকে উৎপন্ন মহাকর্ষীয় তরঙ্গ সনাক্তের ঘোষনা দিলেন।

নতুন আগত সংকেত পুনরায় দুটি ব্ল্যাকহোলের একীভবনের ইঙ্গিত দিচ্ছে।  বিজ্ঞানীর হিসেব করে বলছেন দুটি ব্ল্যাক হোলের ভর সুর্যের ভরের ৮ ও ১৬ গুণের মধ্যে যা মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সির নক্ষত্র থেকে উৎপন্ন ব্ল্যাক হোলের মতোই। এই সংঘর্ষ পৃথিবী থেকে ১৪০ কোটি আলোকবর্ষ দূরে সংঘটিত হয়েছে এবং এই সংকেত কয়েক সেকেন্ড যাবৎ বিদ্যমান হয়েছে যা প্রথম সনাক্তকারী সংকেতের চেয়ে (০.৫ সেকেন্ড) কয়েকগুণ দীর্ঘ। তবে পার্থক্য শুধু এই দীর্ঘসূত্রতার মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়।

কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের LIGO কোলাবরেশনের সদস্য ড. প্যাট্রিক সুটন বলেন “সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য পার্থক্য হচ্ছে এইবারের সনাক্তকৃত বস্তুগুলের ভর অনেক কম। এটি পূর্বের চেয়ে প্রায় অর্ধেক। আগের ব্ল্যাকহোল গুলো সূর্যের চেয়ে ত্রিশগুণ ভারী, যা মিক্লিওয়ে গ্যালাক্সীর পুর্বোক্ত যে কোনো ভাবে পরিমাপকৃত যে কোনো ব্ল্যাকহোলের চেয়ে বড় ছিলো।”

গ্যালাক্সির ঠিক কোন অংশে মহাকর্ষীয় তরঙ্গ উৎপন্ন হয়ে থাকতে পারে এই ছবি থেকে তার সম্ভাব্য অবস্থান পাওয়া যাচ্ছে। ছবি: টিম পাইল

গ্যালাক্সির ঠিক কোন অংশে মহাকর্ষীয় তরঙ্গ উৎপন্ন হয়ে থাকতে পারে এই ছবি থেকে তার সম্ভাব্য অবস্থান পাওয়া যাচ্ছে। ছবি: টিম পাইল

২০১৫ সালের ২৬ ডিসেম্বর সনাক্তকৃত ব্ল্যাকহোলদুটির অন্ততঃ একটি ছিলো ঘূর্নায়মান। যদিও আমরা ধারনাকরি ঘূর্নায়মান ব্ল্যাকহোল থেকে আরো বিভিন্ন ভৌতিক পর্যবেক্ষন সনাক্ত করা যাবে কিন্তু এটিই ঘুর্নায়মান ব্ল্যাক হোলের প্রথম সরাসরি সনাক্তকরণ।

সনাক্তকৃত সংকেত ব্ল্যাকহোল একীভবনের শেষ ২৭ টি ঘটনার মধ্যে একটি রেকর্ড। GW151226 নামে ডাকা এই সংঘর্ষটি একটি নতুন ব্ল্যাক হোল সৃষ্টি করছে যার ভর হবে ২১ সৌরভরের সমান এবং এই ভর নক্ষত্র থেকে স্বাভাবিক ভাবে পরিণত ব্ল্যাকহোলের চেয়ে বেশী। তৃতীয় আরেকটি সনাক্তকরন ঘটনার দাবী করা হয়েছে অক্টোবরে যদিও এটি এখন নিশ্চিতকরন হয় নি।

LIGO দুটি পর্যবেক্ষনাগারের একটি ব্যবস্থা যার একটি লুইসিয়ানা এবং অপরটি ওয়াশিংটন রাজ্যে অবস্থিতি। এই দুটি পর্যবেক্ষনাগারে রয়েছে নিক্ষেপিত লেজারের সমন্বয়ে তৈরি L-আকৃতির ডিটেক্টর যার মাধ্যমে মহাকর্ষীয় তরঙ্গের মাধ্যমে প্রযুক্ত সূক্ষ স্থান-কালের পরিবর্তন সনাক্ত করা যায়।

-বিজ্ঞান পত্রিকা ডেস্ক

Share.

মন্তব্য করুন