‘স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্স’ বাজারে আনছে স্যামসাং

0

কল্পবিজ্ঞান কাহিনীকে সত্য করতে স্যামসাং আরো একটি পদক্ষেপ নিলো। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান স্যামসাং এমন একটি কন্টাক্ট লেন্স তৈরি করতে যাচ্ছে যা দিয়ে দর্শক তাঁর চোখে যেমন দেখবেন তেমন ছবি তুলতে পারবেন। দক্ষিণ কোরিয়া এ নিয়ে স্যামস্যাংয়ের একটি পেটেন্ট অনুমোদন করেছে।

কন্টাক্ট লেন্স হচ্ছে একধরনের নমনীয় ক্ষুদ্র লেন্স যা চোখে লাগানো হয়। যাঁরা চশমা ব্যবহার করতে পছন্দ করেন না কিংবা চশমায় দেখতে বাজে লাগে মনে ধারনা করেন কিংবা চশমা চোখে দিলে সমস্যা বোধ করেন তাঁরা চোখের সমস্যায় কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করেন। এধরনের লেন্সগুলোতে পাওয়ার থাকে। পাওয়ার ছাড়াও চোখের মনির রঙ বদলাতে কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করা হয়। স্যামসাং এর তৈরিকৃত কন্টাক্ট লেন্স স্মার্ট ফোনের ক্যামেরার মতোই কাজ করবে।

চোখের পলক নামানো ওঠানোর মাধ্যমে এই ক্যামেরাকে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এমন একটি সেন্সর দিয়ে এটি ডিজাইন করা হয়েছে যার মাধ্যমে চোখের পাতার মাধ্যমেই চালু করা, বন্ধ করা ও ছবি তোলার কাজ করা যাবে। এর মাধ্যমে তোলা ছবিগুলো খুব সহজেই ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনে ট্রান্সফার করে দিতে পারবেন। এর ফলে ডাটাসমূহ অধিক নিরাপদ একটি স্থানে সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে পাশাপাশি ছবি তুলতে তুলতে স্টোরেজ শূন্য করে আটকে থাকার চিন্তাও দূর হবে।

যে সকল স্থানে সাংবাদিকদের ক্যামেরা নিয়ে প্রবেশ করতে দেয় না, যে সকল অপরাধপ্রবণ সংবেদনশীল স্থানে ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলা ঝুঁকিপূর্ণ সে সকল স্থানে এই ক্ষুদ্র ক্যামেরা যা চোখের ভেতরে স্থান করে নিতে পারে সে সকল স্থানে স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্স খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

শুধু ছবি তোলা ও ভিডিও করা নয়, এর সাহায্যে ভার্চুয়াল রিয়ালিটির স্বাদও পাওয়া যাবে। ভার্চুয়াল রিয়ালিটি যন্ত্রের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করার জন্যই এই লেন্সটিকে ডিজাইন করা হয়েছে। উল্লেখ্য গুগল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেও ‘গুগল গ্লাস’ নামে এমন একটি চশমা বের করা হয়েছিল। দুর্ভাগ্যবশত এটি খুব একটা জনপ্রিয় হয়নি।

চোখের পাতার মাধ্যমে এই ক্ষুদ্র যন্ত্রটিকে নিয়ন্ত্রণ করতে খুব ঝামেলার সৃষ্টি হতে পারে। হাজার হোক চোখ তো আর হাতের মতো কাজ করতে পারে না, তার উপর চোখ দিয়ে সমস্ত অঙ্গ দেখা গেলেও স্বয়ং চোখকেই দেখা যায় না। বিশেষ করে প্রথম দিকে নতুন কোনো পণ্য একটু-আধটু ঝামেলার সৃষ্টি করে। এমনসব সমস্যার কথা বিবেচনা করে কর্তৃপক্ষ এই ক্ষুদ্র লেন্সকে চোখের পাশাপাশি স্মার্টফোন দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করার অপশন রেখেছেন।

স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্সের ডায়াগ্রাম।

স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্সের ডায়াগ্রাম।

কন্টাক্ট লেন্সের এই প্রকল্পে স্যামসাং, গুগলের সাথে মিলে কাজ করছে। স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্স নিয়ে আগে থেকেই গুগলের কিছু পেটেন্ট ছিল। গুগল এমন কন্টাক্ট লেন্স বানিয়েছেও। কিন্তু তা শুধু চিকিৎসাক্ষেত্রে ব্যবহার উপযোগী এবং খুব বেশি সুবিধাজনক নয়। এইসব ত্রুটি বিচ্যুতি ও সীমাবদ্ধতাগুলো কাটিয়ে প্রান্তিক পর্যায়ে সকলের জন্য ব্যবহার উপযোগী একটি যন্ত্র তৈরি করার উদ্দেশ্যে নেমেছে স্যামসাং।

স্যামস্যাংয়ের ব্লগ সাইট স্যামমোবাইল থেকে জানা যায় এমন একটি কন্টাক্ট লেন্স বানানোর প্রক্রিয়া ২০১৪ সাল থেকেই শুরু হয়েছিল। ২০১৬ সালে গণমাধ্যমে এই সংবাদ প্রকাশ হয়। স্যামসাংয়ের এই পণ্য প্রযুক্তি ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিশাল পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারে।

⚫ সিরাজাম মুনির

Share.

মন্তব্য করুন