Top header

এই ইকো-ক্যাপসুলগুলো পৃথিবীর যেকোন স্থানে গ্রিডের সংযোগ ছাড়াই বিদ্যুৎ যোগাবে আপনাকে

0

সৌর ও বায়ুশক্তি চালিত এই ডিম্বাকার গৃহগুলোতে বৃষ্টির পানি সংগ্রহ এবং বিশুদ্ধিকরন ব্যবস্থা যুক্ত। এমন এগুলোতে ক্ষুদ্র রন্ধনশালাও রয়েছে।

Picture3

বিদ্যুৎ সংযোগহীন হয়ে থাকার হ্যাপা কম নয়। প্রথমতঃ আপনার পরিবার এবং বন্ধুবান্ধবকে বোঝানো কেন আপনাকে পরিজন-সমাজ ছেড়ে শান্তিময় প্রকৃতিতে আলাদা হয়ে থাকতে হবে। দ্বিতীয় কিভাবে আপনি বিরুপ পরিবেশে এবং পৃথিবীর পরিবর্তনময় আবহাওয়ায় একাকী টিকে থাকবেন তা-ও ভাবার বিষয়। বিশেষ করে মৌলিক চাহিদাগুলো কিভাবে মেটানো যাবে যার মধ্যে পড়ে পানির সরবরাহ, টয়লেট এবং রান্নার ব্যাবস্থার কথা শুরুতেই ভাবতে হবে বৈকি।
কিন্তু এধরনের বিষয়গুলো নিয়ে আর বেশীদিন ভাবতে হবে না, কেননা এই ডিম্বাকার এবং সুউদ্ভাবিত ছোট বাড়িগুলো সম্প্রতি এধরনের সব সুবিধা নিয়ে উন্মোচন করা হয়েছে। এগুলোই এখন পর্যন্ত জনবিবর্জিত বাসগৃহ হিসেবে ব্যবহারের জন্য সবচেয়ে উপযোগী পন্য।

Picture4

Nice Architects নামক প্রতিস্থানের নকশা করা এই ইকোক্যাপসুলগুলোতে বেশ কিছু টেকসই ব্যাবস্থা আছে। এগুলো খুব সহজে স্থানান্তরযোগ্য, সৌর ও বায়ু চালিত এবং বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ যোগ্য এবং রান্ধনশালা যুক্ত।

Picture5

এই ডিম্বাকৃতির বাড়িগুলো দৈর্ঘ্যে ৪.৫ মিটার, প্রস্থা ২.৪ মিটার এবং উচ্চতায় ২.৫ মিটার। ঘরের প্রয়োজনীয় সবকিছুই প্রায় এটুকু জায়গার মধ্যে এঁটে যায়। মোট ব্যাবহার যোগ্য মেঝের ক্ষেত্রফল ৮ বর্গমিটার, যা নকশাকারদের মতে দু’জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের আরামের সাথে থাকার জন্য যথেষ্ট। এই বাড়িটিতে একটি ভাঁজযোগ্য বিছানা, দুটি বিশালাকায় জানালা, একটি কাজের/খাবারের জায়গা, শাওয়ার ও ফ্ল্যাশযুক্ত টয়লেট , সংরক্ষণশালা এবংরন্ধনশালা রয়েছে।

এতে ৭৫০ ওয়াটের বাতাস টারবাইন এবং৬০০ ওয়াটের উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন সৌর বিদ্যুৎকোষ রয়েছে যা খু্ব সহজেই এই ইকোক্যাপসুলের যাবতীয় বিদ্যুতের চাহিদা পূরণ করবে। এমনকি সঞ্চিত বিদ্যুতে কম সূর্যালোক এবং বাতাস প্রবাহের সময়েও চলা যাবে দীর্ঘ সময়।

এর পাশাপাশি এই উচ্চ প্রযুক্তির ক্যাপসুলে রয়েছে বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা। এই উচ্চ প্রযুক্তির ইকোক্যাপসুলের ওজন প্রায় ১৫,০০০ কেজি এবং প্রচলিত কন্টেইনারে চাপিয়ে সহজেই স্থানান্তর করা যায়।

বিজ্ঞান পত্রিকা ডেস্ক

Share.

মন্তব্য করুন